National Center for Cervical & Breast Cancer Screening & Training

ইলেকট্রনিক ডাটা রেকর্ডিং

স্ক্রীনিংকৃত সকল মহিলার প্রয়োজনীয় সকল তথ্য DHIS2 এ লিপিবব্ধ করার মাধ্যমে একটি শক্তিশালী ও তথ্যবহুল ডাটাবেজ প্রস্তুত করা হচ্ছে। সেবা গ্রহণ করা মহিলাদের পরিচিতি সংক্রান্ত তথ্য, পরীক্ষার ফলাফল, চিকিৎসা, ব্যবস্থাপনা ও ফলোআপ সংক্রান্ত তথ্য এই ডাটাবেজে লিপিবদ্ধ করা হয়। জাতীয়পরিচয়পত্রের নম্বর ব্যবহার করে প্রত্যেক মহিলার জন্য একটি করে ইউনিক ইলেকট্রনিক নম্বর তৈরী করা হচ্ছে।

কমিউনিটি প্রি-রেজিস্ট্রেশন

সিএইচসিপি/ এইচএ/ এফডব্লিউএ কমিউনিটি পর্যায় থেকে হোম ভিজিট, উঠান বৈঠক ও সচেতনতামূলক মিটিংএর মাধ্যমে মহিলাদের স্ক্রীনিং এ উদ্বুদ্ধ করে, তাদের তথ্য সংগ্রহ করেন। সংগৃত তথ্য DHIS2 এ নিবন্ধন করে তাদেরকে নিকটবর্তী স্ক্রীনিং কেন্দ্রে রেফার করে।

ভায়া ও সিবিই পরীক্ষা

সারাদেশে ৬০১ টি স্ক্রীনিং কেন্দ্র স্থাপনে কারিগরি সহায়তা প্রদান করা হয়। স্থানীয় সেবাপ্রদানকারীদের নিয়মিত মনিটরিংয়ের মাধ্যমে সেবাপ্রদানের আগ্রহ ও দক্ষতা বৃদ্ধি করা হয় যেনো প্রকল্প পরবর্তী সময়েও একটি শক্তিশালী স্ক্রীনিং পরিকাঠামো বিদ্যমান থাকে।

জরায়ু-মুখ ও স্তন ক্যান্সারের চিকিৎসা এবং ব্যবস্থাপনা

পজিটিভ সনাক্ত হওয়া রোগীদের সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সারা দেশের ৩৭টি জেলায় ইতোমধ্যে কলপোস্কপি রেফারাল কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে পজিটিভ সনাক্ত মহিলাদের থার্মাল এবলেশন ও লিপের মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদানের ব্যবস্থা রয়েছে। ব্রেস্ট ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে ১৬টি।

কমিউনিটি ও উপজেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য ক্যাম্প ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম

প্রকল্পটি নতুন প্রতিষ্ঠিত কেন্দ্র ছাড়াও দূর্গম এলাকা, অনগ্রসর ও নিম্ন সুবিধাপ্রাপ্ত এলাকাসমুহে স্ক্রীনিং ক্যাম্প পরিচালনা করে। এছাড়া ইলেকট্রনিক মিডিয়ার বিজ্ঞাপন প্রদান, মাইকিং, বিলবোর্ড স্থাপন, ব্রুশিয়ার বিলি করন সহ নানাবিধ সচেতনতামূলক উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

মনিটরিং

DHIS2 এর মাধ্যমে সারা দেশে ভায়া ও সিবিই কেন্দ্র এবং রেফারাল কেন্দ্রগুলোতে স্ক্রীনিং, ডাটা ট্রাকিং, চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপনার মনিটরিং ব্যবস্থা গড়ে তোলা হচ্ছে। এই মনিটরিং ব্যবস্থার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের ম্যানেজারগণ কার্যক্রমকে মনিটরিং ও সুপারভিশন করতে পারেন।